পাসপোর্ট ও ভিসামোবাইল ব্যাংকিং

বাংলাদেশ থেকে পাকিস্তানে কিভাবে কোন ব্যাংক থেকে টাকা পাঠাতে পারবেন?

বাংলাদেশ থেকে পাকিস্তানে কিভাবে কোন ব্যাংক থেকে টাকা পাঠাতে পারবেন? লিগ্যাল কোনো উপায় নাই দেশের বাহিরে টাকা পাঠানোর, যদি কোনো পণ্য কিনেন তাহলে ব্যাংক থেকে T/T payments করা যাবে, পাকিস্তানি হাবিব ব্যাংক থাকলেও তারা আপনার টাকা দেশের বাহিরে পাঠাতে পারবে না, দেশের বাহিরে থেকে শুধু টাকা আসবে। অন্য যেসব উপায়ে পাঠানো হয় সেটা ইলিগ্যাল।

তবে দেশের বাহিরে কেউ থাকলে তার মাধ্যমে পাঠান, যেমন ধরেন মিডেল ইস্টে আপনার পরিচিত কেউ আছে তাকে টাকাটা দিয়ে দিন সেই মিডিল ইস্টের দেশগুলো থেকে পাকিস্তান সেন্ড করে দেবে।

বাংলাদেশ থেকে পাকিস্তানে কিভাবে কোন ব্যাংক থেকে টাকা পাঠাতে পারবেন?

বৈধ কোন উপায় নেই তবে যা আছে সেটা হচ্ছে আপনার যদি ডুয়েল কারেন্সি কোন ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ড থাকে সেই কার্ড দিয়ে আপনি রেমিটলি, ট্রানস্ফেরোয়াইজ বা পেওনিয়ার দিয়ে পাঠাতে পারেন। এখানে একটা বড় সমস্যা হচ্ছে আমাদের দেশের ব্যাংক গুলি তাদের কার্ড এই সমস্ত কোম্পানিগুলোর কাছে সার্ভিস প্রদান করা বন্ধ রেখেছে।

সবচেয়ে ভাল হবে আপনার চেনা পরিচিত কোন ফ্রীলান্সার এর সাথে যোগাযোগ করা। কারণ তাদের কাছে প্রায়ই ফরেন কারেন্সি থেকে থাকে, যা তারা চাইলেই আপনার জন্য অন্য কাউকে পাঠাতে পারবে। যদিও এটা লিগাল কিন্তু আপনি যদি টাকার মাধ্যমে তার সাথে কোনো লেনদেন করেন সেটা আবার অবৈধ পর্যায়ে পড়ে যায়। এক্ষেত্রে নিজ দায়িত্বে লেনদেন করবেন।

Contact Information:
Bank Of Pakistan Gulshan-1
Habib Bank Gulshsn -1
https://www.nbp-bd.com/
http://globalhbl.com/Bangladesh/contact-us.php

মজার কিছু ঘটনা

কিছু মানুষ এসে বলবে, তারা আমাদের উপর কি নির্যাতন টাই না করে গেছে আর আপনি টাকা পাঠাবেন ওদের দেশে!! আপনি তো মিয়া দেশদ্রোহী। একবার এক ফ্রেন্ড কে বলছিলাম, পাকিস্তান ট্যুর এর ব্যপারে, সে লজিক দিলো পাকিস্তান এ ট্যুর দিলে পাকিস্তানি রা টাকা পাবে, পাকিস্তান সরকার রাজস্ব পাবে তাই সে যাবে না।

পাকিস্তান ট্যুর দিয়ে আসেন তারপরে ৬-৮ মাস যে কি পরিমান হ্যাজলের উপর দিয়ে যাইতে হবে কল্পনারও বাইরে। কমপক্ষে পরবর্তী ৬ মাস আপনি বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার নজরদারিতেও থাকতে পারেন। আর একবার পাসপোর্টে পাকিস্তানের ভিসা থাকলে ভারতীয় ভিসা পাওয়ার আশা ওই পাসপোর্টের মেয়াদকাল পর্যন্ত ছেড়ে দিতে হবে। অন্য অনেক দেশেও ভিসা দিতে গড়িমসি করবে। পশ্চিমা অনেক দেশের এ্যাম্বাসী সরাসরি পাসপোর্ট রিজেক্টেড করে দিতে পারে।

আইন ব্যবসায়ী

আইনজীবী হলেন 'আইন ব্যবসায়ী', যিনি একজন এ্যাডভোকেট, ব্যারিস্টার, এটর্নি, সলিসিটর বা আইনি উপদেশক। আইনজীবী মূলত আইনের তাত্ত্বিক বিষয়গুলির বাস্তব প্রয়োগের মাধ্যমে ব্যক্তির বা সংস্থার আইনি সমস্যার সমাধানের কাজ করে থাকেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button